পেশাদারিত্বের অভাবে আমরা অতলে হারিয়ে যাচ্ছি: ঈসা

0
337

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন, আমরা প্রত্যেকেই আমাদের স্ব-স্ব পেশার ক্ষেত্রে আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছি। আমরা নিজেরা মূল পেশা থেকে সরে এসে দলীয় রাজনীতির সংকীর্ণতায় আবদ্ধ হয়ে নিজেদের অবস্থান ও চরিত্র বদলে ফেলছি। ফলে প্রতিটি পেশার ক্ষেত্রে মানুষের আস্থা ও শ্রদ্ধা কমে এসেছে। সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা। এই মহান পেশাকেও আমরা দুইভাগে বিভক্ত করে ফেলেছি। অনেকদিন আগে একটি ফিচার লেখেছিলাম “কলম এখন জয় বাংলা, জিন্দাবাদের কথা বলে” আজ বাস্তবে প্রতিটি ক্ষেত্রে আর প্রতিটি পেশায় আমার এই উপলদ্ধি দৃশ্যমান দেখছি। আমরা যদি নিজেদেরকে বদলাতে না পারি তাহলে আগামী প্রজন্মে ভবিষ্যত অন্ধকার নেমে আসবে। একজন দেশ প্রেমিক সাংবাদিক হিসেবে প্রতিটি সাংবাদিকের উচিত পেশাদারিত্ব বজায় রেখে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করা। সত্য উচ্চারনে কে লাভবান আর ক্ষতিগ্রস্থ হল তা না দেখে একজন দেশ প্রেমিক সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে তৈরী করতে পারলে আমাদের স্বার্থকতা আসবে।

সাপ্তাহিক অগ্রনী বার্তার ১২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ২৮ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবের দ্বিতীয় তলায় কনফারেন্স লাউঞ্জে “ বৈশি^ক করোনা মহামারী ও গণমাধ্যমের ভূমিকা” শীর্ষক আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

পত্রিকার উপদেষ্টা কবি সালাহ উদ্দিন বাদলের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিচারপতি ফয়সাল মাহমুদ ফয়েজী, বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ মোঃ গোলাম ফারুক, কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম বাবলু, ডা. কাজী মো. ইসরাফিল, ব্যারিষ্টার এম. এইচ খান সহ প্রমুখ।

আবৃতি শিল্পী ও লেখক এ্যাড. শিমুল পারভীন ও সানজিদা জাহান রোজের উপস্থাপনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন পত্রিকার সম্পাদক আলী আশরাফ আকন্দ। আলোচনা শেষে সংগীত পরিবেশন করেন কন্ঠশিল্পী মেহেরুন আশরাফ, রোজিনা, রুনা আক্তার সাথী, আবৃতি করেন স্বদেশ কবি আবু বক্কর সিদ্দিক ও জেসমিন বন্যা। উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়িকা রঞ্জিতা, শেরে বাংলা একে ফজলুল হক গবেষণা পরিষদের মহাসচিব আর কে রিপন, স্বাধীনতা সংসদের মহাসচিব সাহেদ আহমেদ সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠান শেষে মানবাধিকারে বিশেষ অবদানের জন্য মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা সহ পাঁচজনকে সাপ্তাহিক অগ্রণী বার্তার একযুগ পূর্তি স্মারক সম্মাননা প্রদান করা হয়।