৯ বছরে বেকারদের ঋণ দেয়া হয়েছে ৮০০ কোটি

0
9

অনলাইন ডেস্ক: যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার বলেছেন, আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে গত ৯ বছরে দেশের বেকার যুবক ও যুবমহিলাকে ৮১৬ কোটি ৩৩ লাখ ৬ হাজার টাকা ঋণ দেয়া হয়েছে। ৫ লাখ ৮৬ হাজার ৫৯১ জনের মধ্যে এই টাকা বিতরণ করা হয়।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের ২১তম অধিবেশনে আজকের বৈঠকে সরকারি দলের সদস্য মো. আনোয়ারুল আজীমের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর বেকার যুবদেরকে দক্ষ মানব সম্পদে পরিণত করতে প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক মোট ৭৫টি ট্রেডে দেশব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে। গত ৯ বছরে ২২ লাখ ৩৭ হাজার ৮৬ যুবক ও যুব মহিলাকে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, সরকার যুবগোষ্ঠীকে সম্পৃক্ত করতে সরকার ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে ‘ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি’ বাস্তবায়ন করছে।

এ কর্মসূচির আওতায় ২৪ থেকে ৩৫ বছর বয়সী উচ্চমাধ্যমিক ও তদূর্ধ্ব শিক্ষাগত যোগ্যতাসম্পন্ন বেকার যুবক ও যুবমহিলাকে ১০টি সুনির্দিষ্ট মডিউলে ৩ মাস মেয়াদী মৌলিক প্রশিক্ষণ প্রদানের পর জাতি গঠনমূলক কর্মকান্ডে সম্পৃক্তকরণের মাধ্যমে অস্থায়ী কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী জানান, ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির আওতায় গতবছর ডিসেম্বর পর্যন্ত ১ লাখ ২৮ হাজার ৮৯৬ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে এবং ১ লাখ ২৬ হাজার ৫৬১ জনকে জাতি গঠনমূলক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে ২ বছরের অস্থায়ী কর্মে নিযুক্ত করা হয়েছে।

বীরেন শিকদার বলেন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো এবং এস এ ট্রেডিংয়ের যৌথ উদ্যোগে ‘হাউজকিপিং’ বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদানের ফলে ২০১৪ সাল থেকে ২০১৭ পর্যন্ত মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলোতে ১ হাজার ৯৮৪ জন এবং হংকংয়ে ৬১ জন মোট ২ হাজার ৪৫ জনের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।