৭ দফা দাবি নিয়ে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের আত্মপ্রকাশ

0
84

অনলাইন ডেস্ক : সংবিধান প্রণেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে ‘জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট’ নামে নতুন রাজনৈতিক জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে।
বিএনপি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি, নাগরিক ঐক্য ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সমন্বয়ে এই নতুন জোট গঠিত হয়।
রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের তৃতীয় তলায় শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই জোটের ঘোষণা দেওয়া হয়।
জোটের ঘোষণা পত্র পাঠ করেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। এতে সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বাতিল, রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা করে নিরপেক্ষ সরকার গঠন, খালেদা জিয়া এবং সব রাজবন্দির মুক্তিসহ ঘোষণাপত্রে সাত দফা দাবি ও ১১ দফা লক্ষ্য তুলে ধরা হয়। তবে এই জোটে নেই ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন বিকল্পধারা।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমেদ, জেএসডি’র সভাপতি আ স ম আবদুর রব, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিষ্টার মইনুল হোসেন, গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন সাবেক ডাকসু ভিপি সুলতান মুহাম্মদ মনসুর আহমেদ।
সংবাদ সম্মেরনে আরও উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ ব ম মোস্তফা আমিন, জেএসডিসহ সভাপতি তানিয়া রব, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, অ্যাডভোকেট জগলুল হায়দার, আ স ম শফিকুল্লাহ ও মোস্তাক আহমেদ, মোস্তাক আহমেদ, রফিকুল ইসলাম পথিক প্রমুখ।
এর আগে বেলা ৩টা থেকে রাজধানীর মতিঝিলে মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ভবনের তৃতীয় তলায় ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের কয়েক দফা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
বিকেল ৫টায় রাজধানীর বেইলি রোডে ড. কামাল হোসেনের বাসায় ওই বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। কামাল হোসেনের চেম্বারে অনুষ্ঠিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত জাতীয় নেতৃবৃন্দ।
বৈঠকটি সাড়ে ৫টায় শেষ হয়। সেখান থেকে তারা সরাসারি প্রেসক্লাবে আসেন। বৈঠকে না থাকলেও প্রেসক্লাবের সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুই সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।
এদিকে, বিকাল সাড়ে ৩টায় যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী সিডিউল অনুযায়ী ড. কামাল হোসেনের বাসায় গিয়ে দেখেন সেখানে সাংবাদিক ছাড়া তাকে স্বাগত জানানো তো দূরের কথা দরোজা খোলারও কেউ নেই। তিনি সেখানে মিনিট পাঁচেক অপেক্ষা করে বারিধারায় নিজ বাসার উদ্দেশ্যে ফিরে যান। পরে তিনি আলাদা সংবাদ সম্মেলন করেন।