সৌদিতে বাংলাদেশি সংবাদকর্মীদের মিলনমেলা

0
40

অনলাইন ডেস্ক : সৌদি আরবে কর্মরত বাংলাদেশি মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকরা নানা আয়োজনে উৎসব করেছেন। রিয়াদের অদুরে আল খারজের একটি অভিজাত রিসোর্টে দিনব্যাপী এই আয়োজন মিলনমেলায় পরিণত হয়।
অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ দূতাবাস রিয়াদের প্রেস সচিব মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, রিয়াদ বাংলা স্কুলের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমেদ ও সেচ্ছাসেবী সংগঠন হাসির প্রতিষ্ঠাতা মোসলেহ উদ্দিন মুন্না।
দীর্ঘদিন পর বহুভাগে বিভক্ত সাংবাদিকরা এ অনুষ্ঠানে নিজেদের অনুভূতি ও আগামী দিনের প্রত্যাশা নিয়ে কথা বলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন একুশে টিভির সৌদি আরব প্রতিনিধি ওয়াহিদুল ইসলাম, আরটিভি ও এটিএন বাংলার সৌদি আরব ব্যুরো প্রধান মোহাম্মদ আবুল বশির, এন টিভি সৌদি আরব ব্যুরো প্রধান ফারুক আহমেদ চান, আর টিভির রিয়াদ প্রতিনিধি সোহরাব হোসেন লিটন, মোহনা টিভির সৌদি আরব প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়, নিউজ টোয়েন্টিফোর ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের সৌদি আরব প্রতিনিধি মোহাম্মদ আল-আমীন, সময় টিভির সৌদি আরব প্রতিনিধি আরিফুর রহমান, বাংলা টিভির রিয়াদ প্রতিনিধি একে আজাদ (লিটন), যমুনা টিভির রিয়াদ প্রতিনিধি সেলিম উদ্দিন দিদার, মাইটিভি সৌদি আরব প্রতিনিধি আব্দুল হালিম নিহন, বর্ন টিভির পরিচালক আল আমিন ফকির, বিডি নিউজের সৌদি আরব প্রতিনিধি শেখ লিয়াকত আহমেদ, এনটিভির রিয়াদ প্রতিনিধি জুয়েল ফকির, ডিবিসি নিউজের রিয়াদ প্রতিনিধি মফিজুল ইসলাম সাগর, এস এ টিভির রিয়াদ প্রতিনিধি শাহপরান মিঠু, ৫২বাংলা ইকবালসহ অনেকে।
দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালায় পুরুষদের প্রীতি ফুটবল ম্যাচটি পদ্মা-মেঘনা ১/১গোলে ড্র হয়। অন্ধের হাঁড়ি ভাঙ্গা প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করেন বিডি নিউজের শেখ লিয়াকত আহমেদ, দ্বিতীয় স্থান লাভ করে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোসলেহ উদ্দিন মুন্না এবং তৃতীয় স্থান অর্জন করেন বাংলাদেশ প্রতিদিনের মোহাম্মদ আল-আমীন।
বাচ্চাদের দৌড় প্রতিযোগিতায় প্রথম হয় মিলহান, দ্বিতীয় সামী এবং তৃতীয় হয় ফারিসা, মহিলাদের মধ্যে অনুষ্ঠিত মিউজিকাল চেয়ার প্রতিযোগিতায় প্রথম হন মিসেস মুন্না, দ্বিতীয় মিসেস আজাদ এবং তৃতীয় স্থান লাভ করেন মিসেস সিরাজ।
মিলনমেলার অন্যতম আকর্ষণ ছিলে র‍্যাফেল ড্র। এতে প্রথম পুরস্কার ছিল ৩২” এলইডি টেলিভিশন, দ্বিতীয় পুরস্কার মাইক্রোওয়েভ ওভেন, তৃতীয় ডিনারসেটসহ ৫টি আকর্ষণীয় পুরস্কার। অনুষ্ঠানে আগত সকল সোনামনিদের জন্য ছিলো শিক্ষা উপকরণ সম্বলিত বিশেষ উপহার সামগ্রী।
পরে রিয়াদের শিল্পীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে সংগীত পরিবেশন করেন ওয়াহিদুল ইলসাম, জামসেদ রানা, বাবুল চৌধুরী এবং রফিক মন্ডল।
অনুষ্ঠানে মোসতাক আহমেদ এর প্রস্তাবনায় ১৪ই ফেব্রুয়ারী সৌদি আরব প্রবাসী সাংবাদিকদের মিলনমেলা দিবস হিসাবে ঘোষণা করেন প্রেস সচিব মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম। তিনি বলেন, প্রবাসীদের সুখ-দুখের খবর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন আপনারা। প্রবাসী সাংবাদিকদের অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে ম্যাগাজিন প্রকাশেরও তাগিদ দেন এই কর্মকর্তা। অনুষ্ঠানের সহযোগিতায় ছিল প্রবাসী সেবা কেন্দ্র এবং ঢাকা মেডিকেল সেন্টার।