সাড়ে সাত শতাংশ প্রবৃদ্ধির আশায় মুহিত

0
14

অনলাইন ডেস্ক : চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশে দেশজ উৎপাদন বা জিডিপির প্রবৃদ্ধি গত অর্থবছরের চেয়ে বেশি হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। শুক্রবার সন্ধ্যায় সিলেটের নজরুল মিলনায়তনে সিলটি নাগরীলিপি নবজাগরণের আনন্দে বই উৎসব অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মুহিত এ কথা জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘গত অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি সাত দশমিক ২৮ শতাংশ হলেও এবার সাড়ে সাত শতাংশের কাছাকছি থাকবে।’

জুলাইয়ের শুরুতে চলতি অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপনের সময় অর্থমন্ত্রী জিডিপির প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেন ৭.৪ শতাংশ। এর আগের অর্থবছরে এই প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭.২৮ শতাংশ। এই প্রথম বাংলাদেশে পরপর দুই বছর প্রবৃদ্ধি সাত এক ঘরে উঠেছে। যদিও ওই অর্থবছরে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৭.২ শতাংশ।

দেশে রাজনৈতিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকায় প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবার আরও সহজ হবে বলে মনে করেন অর্থমন্ত্রী।

তবে বিশ্বব্যাংক অবশ্য এর চেয়ে কম হারে প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস করেছে। তাদের বিশ্লেষণ অনুযায়ী এবার প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৬.৪ শতাংশ। অবশ্য বিশ্বব্যাংক যে পূর্বাভাস দেয় বরাবর প্রবৃদ্ধি হয় তার চেয় বেশি। কারণ বিশ্বব্যাংক অনেক রক্ষণশীল হিসাব দেয়।

আরেক দাতা সংস্থা এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক অবশ্য বিশ্বব্যাংকের চেয় বেশি হারে প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছে। তাদের পূর্বাভাস অনুযায়ী চলতি বছর প্রবৃদ্ধি হবে ৬.৯ শতাংশ।

অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার আগে বই উৎসব অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হলে লাইব্রেরিগুলোকে সমৃদ্ধ করতে হবে। এ জন্য লাইব্রেরি আন্দোলন গড়ে তোলার প্রতিও গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সিলেট মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির ইমিরিটাস অধ্যাপক আব্দুল আজিজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সৌরভ শিকদার, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের পরিচালক কাবেদুল ইসলাম, লেখক মসিহ মালিক চৌধুরী, উৎস প্রকাশনের প্রধান নির্বাহী মোস্তফা সেলিম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।