বাজারে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ ওয়ালটন ল্যাপটপ

0
5

বার্তা প্রবাহ ডেস্ক
দেশে তৈরি ৪ মডেলের ল্যাপটপ বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগযুক্ত এই ল্যাপটপ তৈরি হয়েছে গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটনের নিজস্ব কারখানায়। সাশ্রয়ী মূল্যের ল্যাপটপগুলোর দাম মাত্র ১৯ হাজার ৯৯০ টাকা থেকে ২৩ হাজার ৫৫০ টাকার মধ্যে।
ওয়ালটন কম্পিউটার প্রজেক্ট ইনচার্জ ইঞ্জিনিয়ার মো. লিয়াকত আলী জানান, প্রিলুড সিরিজের ওই ল্যাপটপগুলো তৈরি করা হয়েছে শিক্ষার্থী ও তরুণদের ক্রয়ক্ষমতার কথা বিবেচনায় রেখে। আকর্ষণীয় ডিজাইনের ল্যাপটপগুলোতে ব্যবহৃত হয়েছে ১৪.১ ইঞ্চির এইচডি ডিসপ্লে।
মডেলভেদে রয়েছে ১.১ গিগাহার্জ গতির ইন্টেল অ্যাপোলো লেক এন৩৩৫০ এবং এন৩৪৫০ প্রসেসর। সব মডেলেই আছে বিল্টইন ইন্টেল এইচডি গ্রাফিক্স ৫০০, ৪জিবি র‌্যাম, ১ টেরাবাইট হার্ডড্রাইভ এবং ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি।
এছাড়াও ল্যাপটপগুলোতে ব্যবহৃত হয়েছে মাল্টি-ল্যাংগুয়েজ কিবোর্ড। যাতে স্ট্যান্ডার্ড ইংরেজির পাশাপাশি রয়েছে বিল্ট-ইন বাংলা ফন্ট এবং বিজয় বাংলা সফটওয়্যার। মাত্র ১.৩৩ কেজি ওজনের চার মডেলের এই ল্যাপটপ মিলছে রুপালি, কালো, ধূসর ও সোনালি- ভিন্ন চারটি রঙে। সব মডেলের ল্যাপটপে থাকছে ২ বছরের ওয়ারেন্টি।
তিনি আরও জানান, আগামী মাস থেকে গ্রাহকরা ওয়ালটনের যেকোনো আউটলেট থেকে সাশ্রয়ী মূল্যে মাইক্রোসফটের জেনুইন উইনন্ডোজ ইন্সটল করে নিতে পারবেন। পরবর্তীতে ওয়ালটনের সব নতুন ল্যাপটপ ও কম্পিউটারেই মাইক্রোসফটের জেনুইন সফটওয়্যার দেয়া থাকবে। যার ফলে ল্যাপটপের কার্যক্ষমতা ও গতি আরও বাড়বে। গ্রাহকের তথ্য ও ডিভাইস থাকবে নিরাপদ।
উল্লেখ্য, মাত্র ২০ শতাংশ ডাউন পেমেন্ট দিয়ে ক্রেতারা ১২ মাসের কিস্তিতে কিনতে পারেন সব ধরনের ওয়ালটন ল্যাপটপ ও ডেস্কটপ। দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে সারা দেশে রয়েছে বিস্তৃত সার্ভিস নেটওয়ার্ক।