প্রথমবারের মতো কমপ্লায়েন্স কার্নিভাল এপ্রিলে

0
19

অনলাইন ডেস্ক : দেশে তৈরি পোশাক শিল্পসহ বিভিন্ন শিল্পখাতে কর্মরত কর্মী ও মানবসম্পদ পেশাজীবীদের নিয়ে এই প্রথমবারের মতো আয়োজন করা হচ্ছে ‘ফার্স্ট ন্যাশনাল কমপ্লায়েন্স কার্নিভাল-২০১৮’।
‘লেটস থিংক বিজনেস ইথিক্যালি’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আগামী ২০ এপ্রিল বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারের নবরত্ন হলে এই কার্নিভাল অনুষ্ঠিত হবে।
বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কার্নিভালের ঘোষণা দেন আইসিপি এর মুখপাত্র ও কার্নিভাল আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক শায়লা আশরাফ। সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে ইনস্টিটিউট অব কমপ্লায়েন্স প্রফেশনালস (আইসিপি)।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সকাল নয়টা থেকে কার্নিভাল শুরু হয়ে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত চলবে। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালায় থাকবে কমপ্লায়েন্স বিষয়ভিত্তিক ‍দুইটি সেমিনার ও একটি গোলটেবিল বৈঠক। কমপ্লায়েন্স সম্পর্কিত পণ্য ও সেবা বিপণনকারী ১৫টি প্রতিষ্ঠানের পণ্য প্রদর্শন এবং শেষাংশে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন থাকবে।
দেশের যেকোনো প্রতিষ্ঠানের কমপ্লায়েন্স বিভাগে কর্মরত যে কেউ এই অনুষ্ঠানে নিবন্ধন করে উপস্থিত থাকতে পারবেন। নিবন্ধন করতে হবে www.compliancecarnival.rmgtimes.com এই ঠিকানায়। নিবন্ধন শেষে ফিরতি ইমেইলে নির্দেশনা অনুযায়ী এক হাজার টাকা জমা দিয়ে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। আগামী ১৫ মার্চ পর্যন্ত রেজিস্ট্রেশন করা যাবে।
সংবাদ সম্মেলনে আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক শায়লা আশরাফ বলেন, ১২ হাজার ডলারের রপ্তানি আদেশ দিয়ে শুরু করে পোশাকশিল্প আজ পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম পোশাক রপ্তানিকারক দেশ। রপ্তানিমুখী এসব শিল্প প্রতিষ্ঠানে উৎপাদিত পণ্যের গুণগত মান ধরে রাখার পাশাপাশি বিশ্বমানের কমপ্লায়েন্স নিশ্চিত করাও জরুরি। দেশে কয়েক হাজার কমপ্লায়েন্স পেশাজীবী থাকলেও তাদের দক্ষ ও যুগোপযোগী করে গড়ে তুলতে প্রশিক্ষণের যথেষ্ট ব্যবস্থা নেই।
শায়লা আশরাফ বলেন, ফ্যাক্টরিতে বিদেশি বায়ারদের সামনে পণ্য উপস্থাপন করার কাজটি পুরোটাই শ্রমআইন অনুযায়ী করে কমপ্লায়েন্স ডিপার্টমেন্ট। ফ্যাক্টরির সেফটি প্রটেকশন দেখার দায়িত্ব আমাদের ওপরই বর্তায়। বাংলাদেশের গার্মেন্ট শিল্পকে একটি সুন্দর জায়গায় নিয়ে যাওয়াই আমাদের লক্ষ্য। এজন্যই কার্নিভালের আয়োজন করা হচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, আরএমজি টাইমস এর সম্পাদক ও প্রকাশক আব্দুল হালিম, সিনিয়র সিএসআর পরামর্শক লুৎফুল কবীর, এসআর এশিয়ার কান্ট্রি ডিরেক্টর সুমাইয়া রশিদ প্রমুখ।