পাথর বোঝাই ট্রাক্টর আটকে চাঁদা দাবি, না পেয়ে হত্যার হুমকি

0
296

বার্তা প্রবাহ ডেস্ক : বাড়ির সামনে দিয়ে পাথর ভর্তি ট্রাক্টর চালাতে হলে ট্রাক্টর প্রতি ৫০০ টাকা চাাঁদা দাবির প্রতিবাদ করায় মেরে জখম করা ও হত্যার হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে নীলফামারী সদর থানার কচুকাটা বালা বাড়ী এলাকায়।

নীলফামারী সদর থানায় অভিযোগকারী মোঃ লিটন মিয়ার দায়েরকৃত অভিযোগ অনুযায়ী তাহার বাবা মোঃ কহিনুর মিয়া একজন ব্যবসায়ী। নীলফামারী সদর থানার কচুকাটা বালা বাড়ী এলাকার মোঃ মশিউর রহমান, মোঃ অফিসার রহমান, মোঃ আশেদুল ইসলাম (জামাতী), মোছাঃ পরিজন বেগম, মোছাঃ মর্জিনা বেগম, মোঃ ওয়াহেদুল ইসলামদের বাড়ির সামনে দিয়ে পাথর ভর্তি ট্রাক্টর যাতায়াত করে। প্রতিদিনের মতো ২-৪-২০২০ তারিখ রাত ৯টার পর পাথর ভর্তি ট্রাক্টর অভিযুক্তদের বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় সকলে মিলে পাথর ভর্তি ট্রাক্টর আটকে রাখে। খবর পেয়ে অভিযোগকারীর পিতা মোঃ কহিনুর রহমান ঘটনাস্থলে গেলে মোঃ মশিউর রহমান ও মোঃ আশেদুল ইসলাম (জামাতী) জানান তাদের বাড়ির সামনে দিয়ে ট্রাক্টর চালাতে হলে ট্রাক্টর প্রতি ৫০০ টাকা চাঁদা দিতে হবে। তাহাদের দাবিকৃত চাঁদা দিতে অপরগতা প্রকাশ করা মাত্র অভিযুক্তরা মোঃ কহিনুর রহমানকে মারতে আসলে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে।

পরে সেখান থেকে চলে আসার পর অভিযোগকারী ও তাহার পিতা বাসায় ফেরার পথে ঐদিন রাত অনুঃ ৯টা ৫০ মিনিটের সময় পুনরায় কচুকাটা বাজারে পথরোধ করে অভিযুক্তরা মোঃ কহিনুর রহমানকে মারধর করে পকেটে থাকা ৩১,৯০০ টাকা নিয়ে যায় এবয় যাওয়ার সময় আবারো হুমকি দেয় বাড়ির সামনে দিয়ে ট্রাক্টর চারাতে হলে ৫০০ টাকা করে চাঁদা দিতে হবে আর বেশি বাড়াবাড়ি করলে জীবনে শেষ করে দিব।

বিষয়টি একায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। এ বিষয়ে নীলফামারী সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছে এলাকাবাসী ও ভূক্তভোগী পরিবার।