নগ্ন ছবি তুলে দেশছাড়া ইরানি মডেল, ভালো নেই প্যারিসে

0
36

অনলাইন ডেস্ক:নগ্ন ছবি তুলে দেশছাড়া ইরানি মডেল, ভালো নেই প্যারিসে
নারীদের হিজাব পরা বাধ্যতামূলক ইরানে কোনো রকম নগ্নতাকে প্রশ্রয় দেওয়া হয় না। হিজাব না পরলে নারীদের প্রচলিত আইনানুযায়ী বিচারের মুখোমুখি হতে হয়। রাষ্ট্রের কড়াকড়ি এমন আদেশ লঙ্ঘন করে নিজের অর্ধনগ্ন ছবি পোস্ট করে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন ইরানের মডেল নেগজিয়া (২৯)। দেশ ছেড়ে পালিয়ে প্যারিসে পাড়ি জমিয়েও ভালো নেই তিনি। খবর দ্য সান ইউকের।
জানা গেছে, এ ঘটনায় দেশ ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন নেগজিয়া। তাকে দেখা গেছে প্যারিসে। তিনি ছবিগুলো তুলেছিলেন ২০১৭ সালে। তখন থেকেই তিনি রেভুল্যুশনারি গার্ডসের রোষানলে পড়েন। তার ঐ ছবিকে অশ্লীল ও নির্লজ্জ বলে আখ্যায়িত করা হয়। তাই তিনি জেল হওয়ার ভয়ে প্রথমে পালিয়ে তুরস্কে চলে যেতে বাধ্য হন। সেখান থেকে চলে যান প্যারিসে। ওই প্যারিসেই তিনি নভেম্বর মাসে আশ্রয় প্রার্থনা করেছেন।
সেখানে তাকে জীবনের সঙ্গে সংগ্রাম করতে হচ্ছে। গৃহহীন নেগজিয়া ঘুমাচ্ছেন রাস্তায় ও পার্কের বেঞ্চে। পেটের ক্ষুধা মেটাতে তিনি পোশাকসহ একটি ব্যাগ মাত্র ১০ ইউরোতে বিক্রি করেছেন। তবে নেগজিয়া তার কৃতকর্মের জন্য মোটেও অনুশোচনা করেন না। তিনি বলেন, আমি একজন গর্বিত নারী। আমি বেরিয়ে এসেছি। ভেঙে দিয়েছি আইন।
উল্লেখ্য, নেগজিয়ান অর্ধনগ্ন কতগুলো ছবি একজন ফটোগ্রাফার পুলিশের হাতে তুলে দেয়ার পর থেকে তিনি রোষানলে পড়েন। তার আশঙ্কা, এর মধ্য দিয়ে ইরানে কঠোরভাবে অনুসরণ করা শরিয়া আইন লঙ্ঘনের দায়ে তিনি কঠোর শাস্তির মুখোমুখি হবেন। তাই তিনি অপকর্মের শাস্তি এড়াতে দেশ ছাড়েন। কিন্তু দেশ ছেড়ে দিন বদলায়নি তার; বরং জীবন আরও কঠিন হয়ে উঠেছে