টানা দরপতনের পর মূল্য সূচকের বড় উত্থান

0
32

অনলাইন ডেস্ক: টানা দুই কার্যদিবস দরপতনের পর রোববার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচকের বড় উত্থান হয়েছে।

আজ রবিবার এদিন মূল্য সূচকের বড় উত্থানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে ব্যাংক ও আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠানগুলো। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ব্যাংক খাতের একটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম কমেনি। ৩০টি ব্যাংকের মধ্যে দাম বাড়ার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ২৯টি। আর আর্থিক খাতের লেনদেন হওয়া ১৩টি কোম্পানির শেয়ার দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৫টির।

দাম বাড়ার তালিকায় ব্যাংক ও আর্থিক খাতের দাপটে মূল্য সূচকের বড় উত্থান হলেও কিছুটা কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৯৬৮ কোটি ৯১ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ১ হাজার ১১ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। সে হিসেবে আগের কার্যদিবসের তুলনায় লেনদেন কমেছে ৪২ কোটি ৬৫ লাখ টাকা।

লেনদেনে কিছুটা কমলেও লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৯৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ১৩৩টি। আর ২০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ায় ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৬১ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৮৮৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক আগের দিনের তুলনায় ৯ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৩১৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ২০ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ২৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

টাকার অঙ্কে এদিন ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ২২ কোটি ২৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা প্রিমিয়ার ব্যাংকের ২১ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২১ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে জেএমআই সিরিঞ্জ।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ইউনাইটেড ফাইন্যান্স, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, ডাচ-বাংলা ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, বিবিএস কেবলস এবং ড্রাগন সোয়েটার।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ১২৭ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৯১৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৫১ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৮৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৬২টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১০৪টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টির।