জাতীয় ঐক্যের বার্তা দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন খালেদা

0
933

অনলাইন ডেস্ক : বহুল আলোচিত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় আগামী বৃহস্পতিবার। এর ঠিক একদিন আগেই জাতীয় ঐক্যের বার্তা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন এই মামলার প্রধান আসামী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।
গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আজ বুধবার বিকাল ৫টার দিকে এই সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে জানিয়েছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী।
জানা যায়, গণমাধ্যমে এসে তার বিরুদ্ধে যে মামলা দায়ের হয়েছে এর আদ্যোপান্ত তুলে ধরবেন বিএনপি প্রধান। এদিকে বুধবার রাতে শেষ মূহুর্তে দলের স্থায়ী কমিটির সঙ্গে বসবেন বিএনপি প্রধান। সেখানে তিনি জেলে গেলে দল কিভাবে পরিচালনা হবে, পরবর্তী বিএনপির কর্মসূচি কি হবে তা নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা হবে। এর আগে সন্ধ্যায় চীনা কমিউনিস্ট পার্টির একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে গুলশান কার্যালয়ে বৈঠক করবেন বেগম জিয়া।
সূত্র জানায়, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী খালেদা জিয়ার সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্যের খসড়া করেন। পরে এটা নিয়ে আরো কয়েকজনের মতামত নেন বেগম জিয়া। মঙ্গলবার রাতে ওই খসড়া চূড়ান্ত করা হয়।
জানা যায়, বিএনপি চেয়ারপারসন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ্যতার গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ধরার পাশাপাশি জাতির বাকি ৩৬টি মামলার প্রোপট নিয়েও কথা বলবেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী। সেই সঙ্গে দেশবাসীর কাছে তুলে ধরবেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ওয়ান ইলেভেনে দায়ের হওয়া মামলাগুলো নিয়ে। ওইসব সহ আওয়ামী লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলার সঙ্গে বিরোধী দলের মামলার বিশ্লেষণ উঠে আসতে পারে সংবাদ সম্মেলনে। দলীয় নির্ভরযোগ্য সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
জানা যায়, রায়ের ফলাফল নেতিবাচক ধরে নিয়েই বিএনপির ভবিষ্যত পরিকল্পনা করছেন বেগম খালেদা জিয়া। এ জন্যই কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত নেতা-কর্মীদের মধ্যে ঐক্যের বন্ধন গড়ে তুলতে চান তিনি। সংবাদ সম্মেলনে দলের নেতা-কর্মীর উদ্দেশ্যেও বিশেষ বার্তা আসতে পারে। দলের মধ্যে যেন কেউ ফাটল না ধরাতে পারে সেই ব্যাপারেও একটি দিক নির্দেশনা দিতে পারেন বেগম জিয়া।
বিএনপির এক সিনিয়র জানান, সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসন দলীয় নেতাকর্মী, দেশবাসী, বিচারক, পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ও প্রশাসন এবং সরকারের উদ্দেশে বক্তব্য রাখবেন। দেশের গণতন্ত্র ও আইনের শাসনের বর্তমান অবস্থা নিয়েও নিজের মূল্যায়ন তুলে ধরবেন। প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ থেকে দেশ সেবার আহ্বান জানাবেন। তবে গণতন্ত্র ফেরাতে সর্বদরীয় জাতীয় ঐক্য গঠনে সবচেয়ে বেশী গুরুত্ব দেবেন বিএনপি চেয়াপারসন।