কেমিক্যাল গোডাউন অপসারণ, আমুকে দুষলেন দিলীপ বড়ুয়া

0
48

অনলাইন ডেস্ক : পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যালের গোডাউন না সরানোয় আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা আমির হোসেন আমুকে দোষারোপ করেছেন ১৪ দলের শরিক সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া। আমু এবং দিলীপ দুজনই সাবেক শিল্পমন্ত্রী। ২০০৯ থেকে ২০১৪ দিলীপ এবং ২০১৪ থেকে ২০১৮ এই মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ছিলেন মহাজোটের দুই নেতা।
শনিবার দুপুরে ১৪ দলীয় জোটের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে চকবাজারের চুড়িহাট্টা পরিদর্শনে যান দিলীপ বড়ুয়া। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে বলেন, ‘আমাদের যিনি শিল্পমন্ত্রী (আমু) ছিলেন, তিনি যদি সিরিয়াসলি নিতেন, তাহলে পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গোডাউন রিলোকেট করা সহজ হতো। আমি মন্ত্রী থাকাকালে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, কেমিক্যাল মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন এবং বিসিক, তারা মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তারা ঢাকার বাইরে একটি জমিতে স্থানান্তরিত হবে। এটা আমাদের প্রতিজ্ঞা ছিল। কিছু ডিসক্রিট ব্যাপারের কারণে পুরো ব্যাপারটি এগোয়নি।’
দিলীপ বড়ুয়া বলেন, ‘যারা স্টেক হোল্ডার আছেন, তারা সরকারকে বাধ্য করতে পারেনি। ভবন মালিকদেরও দায় আছে। তারা বেশি ভাড়া পাওয়ার জন্য গোডাউন ভাড়া দেন এবং ব্যাপারটি লুকিয়ে রাখেন ‘
২০১০ সালে রাজধানীর নিমতলীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে শতাধিক লোকের প্রাণহানি ঘটে। কেমিক্যালের গুদাম থেকেই তখন আগুন ছড়ায় দ্রুত। সেই সময় শিল্প মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন দিলীপ বড়ুয়া। তখন শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে পুরান ঢাকাকে কেমিক্যাল গোডাউনমুক্ত করার সিদ্ধান্ত হয়। এর পরের সরকারে শিল্পমন্ত্রীর দায়িত্বে আসেন আমির হোসেন আমু। আর এখন শিল্পমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন নুরুল মজিদ হুমায়ুন।
মূলত সরকারের বিভিন্ন সংস্থার মধ্যে সমন্বয়হীনতার কারণে গত নয় বছরে কেমিক্যাল গোডাউনমুক্ত করা যায়নি পুরান ঢাকাকে। গত বুধবারে চকবাজারের চুড়িহাট্টায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের পর নড়েচড়ে বসেছে সরকার। শনিবার থেকে পুরান ঢাকাকে কেমিক্যালমুক্ত করতে কাজ শুরু করেছে দক্ষিণ সিটি করপোরেনশন।