কুড়িগ্রামে স্ত্রীর হত্যাকারীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ

0
266

হাবিবুর রহমান হাবিব, কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ আপন বড় ভাইয়ের স্ত্রীর সাথে পরকীয়া প্রেমে বাধা দেওয়ার জেরে নিজ স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামী বকুল মিয়াকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে কুড়িগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নান এ আদেশ দেন। পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আব্রাহাম লিংকন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
মামলা তথ্যসূত্রে জানা যায়, জেলার রাজিবপুর উপজেলার চর সাজা নয়াপাড়া গ্রামের মৃত আজিজল হক এর পুত্র বকুল মিয়া তার আপন বড় ভাইয়ের বউয়ের সাথে পরকীয়া প্রেমে আসক্ত ছিল। তা প্রত্যক্ষ দর্শনে তার স্ত্রী শাহীনা বেগম বাধা দেন। সেই ক্ষোভে ২০০৭ সালের ২ডিসেম্বর বকুল মিয়া স্ত্রী শাহীনা বেগমকে গলা টিপে হত্যা করে মরদেহ ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখে এবং আত্মহত্যা বলে বুঝানোর চেষ্টা করে।অতঃপর ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে শাহীনা বেগমের মৃত্যু শ্বাসরোধে হত্যা বলে প্রতীয়মান হওয়ায় শাহীনার বাবা শামছুল হক বাদী হয়ে বকুল মিয়া ও তার ভাবী নুরুন্নাহার বেগমকে আসামি করে মামলা করেন। দীর্ঘ ১৩ বছর মামলার শুনানী ও সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে মঙ্গলবার দুপরে আদালত বকুল মিয়াকে দোষি সাবস্ত করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেন। অপর আসামি ও বকুল মিয়ার বড় ভাইয়ের স্ত্রী নুরুন্নাহারকে বেকসুর খালাস দেন বিজ্ঞ আদালত।
মামলায় সরকার পক্ষে আইনজীবী ছিলেন পিপি আব্রাহাম লিংকন এবং আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন ফখরুল ইসলাম।