করোনা ও অনলাইন নির্ভরতা

0
188

মোঃ মশিয়ুর রহমান খান
করোনা ভয়াবহ মহামরি আতংক যতোই বাড়ছে ; মানুষ ততোই ঘরমুখো যাচ্ছে । আমরা সেটাকে বলি লগডাউন । মানুষ শুধু শুধু ঘরে বসে থাকতে পারে না । মানুষের চাহিদা ঘরে বসে কোন ভাবেই মেটে না । জীবন কিভাবে বাঁচানো যায় । তাই অবসর যাপনে অনলাইন নির্ভরতা বেড়েই চলছে ।

শুরু হয় ঘরে বসেই কিভাব কাজ চালিয়ে যাওয়া যায়? যারা কোন দিন অন লাইন কি তাও জানতো না তারাও শিখে ফেলছে কিভাবে ডিজিটালাইজ হওয়া যায় এবং গত দুই মাসে হয়েও গিয়েছে । তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে –

অনলাইন সংবাদ নির্ভরতা :
ছোটবেলায় বাবা-মা আমাকে পেপার পড়া শিখিয়েছেন। কলাম পড়া শিখিয়েছেন। শিখিয়েছেন এক পৃষ্ঠা থেকে আরেক পৃষ্ঠায় এভাবে যাও। তখন আমরা আগের দিনের পত্রিকা পরের দিন পেতাম। তারপর সকালের পত্রিকা পেতাম বিকেলে।
কিন্তু এখন আর আমরা পরের দিনের পেপারের জন্য অপেক্ষা করি না। বিশ্বের যে কোণেই থাকি না কেন, বাংলা পত্রিকাগুলো অনলাইনে সঠিক সময়েই পাচ্ছি। এটা হচ্ছে সবচেয়ে বড় সুবিধা। কখন, কোথায়, কী ঘটছে, তার রিয়েল টাইম ইনফরমেশন বিভিন্ন ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে পচ্ছি। বাংলাদেশে খুব দ্রুত ডিজিটালাইজেশন হচ্ছে। অনলাইনে সবকিছুই আসছে, মফস্বল সংবাদ থেকে বিনোদনও। সম্প্রতি গুগলের যে ট্রেন্ড, রিসার্চ, তাতে দেখা গেছে, ৯০ শতাংশ মানুষ নিউজ দেখার জন্য ইন্টারনেটে প্রবেশ করেন। দিনে তাতে একাধিকবার মানুষ প্রবেশ করেন। এটার মধ্য দিয়ে অনলাইন পত্রিকা একটি জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠনে বিরাট অবদান রাখছে ।

ই কমার্স নির্ভরতা:
করোনাভাইরাস বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ায় গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে মানুষ। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হচ্ছেন না বেশিরভাগ মানুষ। ফলে শুধু জামাকাপড় নয় অনলাইনে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যও কিনে নিচ্ছেন অনেকেই। এ সুযোগে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ই-কমার্সের বাজার।

ফোর্বস ম্যাগাজিনে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিষ্ঠান পিওয়াইএমএনটিএস এর এক জরিপে বলা হয, ২০২০ সালে ভোক্তাদের অনলাইন কেনাকাটা আগের বছরের চেয়ে বেড়েছে ৩০.৬ শতাংশ। যা প্রমাণ করছে করোনায় মানুষ গৃহবন্দী হওয়ায় অনলাইন নির্ভরতা বাড়ছে।

কোয়ান্টাম মেট্রিকের এক জরিপে বলা হয়, গত ২১ এপ্রিল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় অনলাইন খুচরা বেচাকেনা বেড়েছে ১৪৬ শতাংশ। এ সময় যুক্তরাষ্ট্রের অনলাইন খুচরা কম্পানিগুলোর রাজস্ব বেড়েছে ৬৮ শতাংশ। অনলাইন বেচাবিক্রিতে শীর্ষ কম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে আলিবাবা, আমাজন ও জেডি ডটকম।

বেচাকেনা বাড়ায় নতুন করে ১ লাখ কর্মী নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে আমাজন। খেলার সামগ্রী বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান নিকও জানিয়েছে তাদের অনলাইন বিক্রি ব্যাপকভাবে বেড়েছে। তিনমাসের ব্যবধানে চীনে তাদের বিক্রি বেড়েছে ৩০ শতাংশ।

গত ২৭ এপ্রিল জাতিসংঘের বাণিজ্য ও উন্নয়ন সংস্থা আঙ্কটাড প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৮ সালে বিশ্বে অনলাইন বেচাকেনা বেড়ে হয়েছে ২৫.৬ ট্রিলিয়ন ডলার। যা ২০১৭ সালের চেয়ে ৮ শতাংশ বেশি। ২০১৭ সালে এ বাজার ছিলো ২৩.৮ ট্রিলিয়ন ডলার। বলা হয়, করোনাভাইরাসে বিশ্ব যে পরিমাণ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তা থেকে উত্তোরণে সহায়কা হবে ই-কমার্স।

আইবিএম চায়নার সিইও অ্যালেইন বেনিচো বলেন, ‘করোনা সংকটের কারণে এটাই হচ্ছে নতুন স্বাভাবিকতা। এ মুহুর্তে আমরা যেভাবে কাজ করছি তাতে বদলে যাবার অনেক আহবান আছে।’

স্বাস্হ্য বিষয়ক অনলাইন নির্ভরতা :
কভিড-১৯ বা নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি কমাতে অনলাইনে ফ্রি স্বাস্থ্য পরামর্শ সেবার কার্যক্রম শুরু করেছে বাংলাদেশে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। কভিড-১৯ পরিস্থিতির উপর ভিত্তি করে পরবর্তীতে এই অনলাইন ভিত্তিক সেবার আওতা ও সময়সীমা বৃদ্ধি করা হবে।কোভিড- ১৯ প্রেক্ষাপটে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রাপ্তি ব্যাহত হচ্ছে। এছাড়াও বর্তমান পরিস্থিতিতে ক্রনিক রোগে আক্রান্ত রোগীসহ সাধারন জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টের রোগীদের চিকিৎসা প্রাপ্তি অনেক জায়গায় প্রায় অসম্ভব। এ পরিস্থিতিতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে টেলিমেডিটেলিকনসালটেশনের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। ভিডিও কলের মাধ্যমে ডাক্তারদের সাথে কথা বলার জন্য আমিদের দেশেও আরো উন্নত টেলি প্লাস ভিডিও কনসালটেশন (একটি অ্যাপভিত্তিক পরিষেবা) শুরু করেছে। টেলিমেডিসিন সেবা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এই কার্যক্রমে প্রযুক্তি সহায়তা দিচ্ছে ‘HelloDoctor.Asia’। এই মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে বিনামূল্যে ভিডিওতে যুক্ত হয়ে ডাক্তারের কাছ থেকে স্বাস্থ্য পরামর্শ নেওয়া যাবে।

ই লার্নিং নির্ভরতা :
লেখাপড়া এই মূহুর্তে পুরোপুরি চলছে অনলাইনে । কিন্ডারগার্টেন থেকে বিশ্ববিদ্যালয় সব ক্লাস চলে এ মাধ্যমে । যে সব স্যারেরা অনলাইন কি বুঝতো না তারাও দিব্যি ক্লাস নিচ্ছে । ছাত্ররা ক্লাস করছে ; এমনকি বাড়ির কাজ জমা দিচ্ছে । ধীরে ধীরে অভ্যস্হ হচ্ছে । অনেকটা এরকম যে শিখছো কোথায়? উত্তরে ঠেকছি যেথায় ।

তাই এই মহামারিতে সর্বস্হানে সামাজিক দুরত্বের কারনে মানুষ নিজের অজান্তেই অনলাইন নির্ভর হয়ে উঠছে ।

লেখক : মোঃ মশিয়ুর রহমান খান, সাংবাদিক ও সংগঠক, নির্বাহী সম্পাদক, বার্তা প্রবাহ।