করোনাকে পুঁজি করে গাইবান্ধায় ব্যাপক হাড়ে বৃদ্ধি পেয়েছে চালের বাজার

0
32

শেখ মোঃ সাইফুল ইসলাম, রংপুর ব্যুরো : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় হাট বাজার গুলিতে পাইকারী ও খুচরা মোদি দোকান গুলিতে ব্যাপক হাড়ে বৃদ্ধি পেয়েছে চালের বাজার ।

ভুক্তভোগী অসহায় পরিবার গুলি ব্যাপক হাড়ে বিপদের সম্মুখীনে দাড়িয়েছেন ।

বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের দারিদ্র পরিবারের সদস্য শফিকুল ইসলাম, সবুজ চৌধুরী, রাজ্জাক মিয়া, মাইদুল ইসলামসহ কয়েক জনের সঙ্গে কথা হলে তারা সাংবাদিকের নিকট অভিযোগ করে বলেন, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সকল চাউল ব্যবসায়ী, করোনা ভাইরাসকে পুঁজি করে, কয়েক দিন থেকে চালের বাজার চরম পন্থী হয়ে করেছে বলে জানান তারা ।

এমনকি তারা আরো বলেন, কয়েক দিন আগে প্রতি কেজি চালের দাম ছিল মাত্র ২৮/২৯ টাকা, বর্তমানে তা ছাড়িয়ে ৩৩/৩৫/৩৮ টাকা কেজিতে কিনতে হচ্ছে তাদের ।

ভুক্তভোগী পরিবারের আর এক সদস্য রিপন মিয়া অভিযোগ করে বলেন ১২৫০/১৩০০ টাকার চালের বস্তা বিক্রয় করছেন ১৭৫০/১৮৫০ টাকায়, এমন ভাবে চালের দাম বৃদ্ধি পেলে তার মত অসহায় পরিবার গুলিকে না খেয়ে থাকতে হবে বলে জানান রিপন ।

পাশাপাশি রিপন আরো বলেন, চৌধুরী বাজারে মুদি দোকান গুলিতে কেরোসিনের বাজার চরমপন্থী হয়ে পড়েছে ।

আরো জানাযায়, চৌধুরী বাজার এলাকার, হাসেন আলী ও বাবলু হাফেজ কেরোসিন ক্রয় করতে এসে কেরোসিন না পেয়ে ফিরিয়ে জান তারা, এমন ভাবে ব্যবসা খাদে কৃত্তিম সৃষ্টি করছেন ব্যবসায়ী মহল ।

চালের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে, চৌধুরী বাজার নামক বাজারের পাইকারী মুদি ব্যবসায়ী, মোঃ মাহাবুর রহমানের সঙ্গে কথা হলে, তিনি সাংবাদিকদের জানান, বর্তমানে জেলার বড় বড় ব্যবসায়ী গণ চালের পাশাপাশি বিভিন্ন পন্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার আসমকা দেখা দিয়েছে বলে জানান ব্যবসায়ী ।

এমনকি তিনি আরো বলেন, আসলেই চালের বাজার বৃদ্ধি পেয়েছে, কয়েক দিন আগেই মাহাবুর রহমান তিনি নিজেই চাল বিক্রয় করতেন মাত্র ২৮/৩০/ টাকা, বর্তমানে তার দোকানে চাল না থাকায়, প্রতি কেজি চালের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ৪/৬ টাকা, বৃষ্টি পেয়েছে বলে জানান তিনি ব্যবসায়ী ।

চালের বাজার স্থীর করতে, সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজি লুতফুল হাসানের সঙ্গে কথা হলে, তিনি সাংবাদিকদের জানান, সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় যদি কোনো ব্যবসায়ী ভোক্তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করে, অবৈধ ভাবে চালের বাজারে কৃত্তিম সৃষ্টি করে, চালের দাম বৃদ্ধি নেয়ার প্রমাণ পাওয়া গেলে, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইন আনুক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে, এমনটাই জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা ।