এমপির নির্দেশে অসহায় বঞ্চিতদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার পৌঁছে দিচ্ছে আলাউদ্দিন রনি

0
179

বিধু রাজবংশীঃ ব্রাহ্মণবাড়ীয়া নাসিরনগর উপজেলায়,আজ সকালে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী নাসিরনগর মাটি ও মানুষের নেতা বি এম ফরহাদ হোসেন (সংগ্রাম) এমপি মহোদয় নির্দেশে
অসহায় ও দুস্ত মানুষ যাতে বঞ্চিত না হয়।সেজন্য কিছু বিশ্বাস ভাজন আওয়ামীলীগ কর্মীদেরকে ইউনিয়ন ও গ্রামের দায়িত্ব অর্পণ করেছেন।তেমনি একজন মুজিব আদর্শে উজ্জীবীত তরুন বরিশ্বর ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামের সন্তান মোঃ আলাউদ্দিন রনি।এমপি মহোদয় ওনার দূরদৃষ্টির মাধ্যমে বুঝতে পেরেছেন। যারা উপহার পাওয়ার যোগ্য ছিলো কিন্তুু জনপ্রতিনিধিদের সুদৃষ্টি তাদের পাশ কাটিয়ে বঞ্চিত করা হয়েছে।বুড়িশ্বর ইউনিয়ন নিরঅন্ন সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের সঠিক মূল্যায়নের জন্য আলাউদ্দিন রনিকে বিবেচনা করা।কারন অসহায় ও সাধারণ মানুষ আপদে বিপদে রনিকেই পাই সবার আগে।তাদের অভাব অভিযোগের এক কেন্দ্র বিন্দুতে
পরিনত হয়েছে তরুন রনি।
শুধু প্রধানমন্ত্রীর উপহার নয় নিজ উদ্যোগে ও বারবার অসহায় মানুষের পাশে ছিলো মোঃ আলাউদ্দিন রনি।এজন্যই জনপ্রতিনিধি নয় কিন্তু
উপহার সামগ্রী মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে দায়িত্ব অর্পণ করলেন এমপি মহোদয়।আস্থা ও বিশ্বাসের শক্তিশালী সেতু নির্মাণের মাধ্যমে নিজেকে সম্পূর্ণ সমর্পণ করেছেন মানুষের কল্যানে।করোনা পরিস্থিতিতে সুবিধা বঞ্চিত মানুষগুলোর কাছে রনি এখন আশার প্রদীপ শিখা।প্রতিটি বাড়ি বাড়ি নিরলসভাবে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ফেরি করেছে রনি।এই বিরতিহীন মানবিক পথ চলা হয়তো সুদুরপ্রসারি।মানুষের জন্য কাজ করার দৃঢ় প্রতয় তার চেতনায়।
আলাউদ্দিন রনি বার্তা প্রবাহকে জানায়,প্রথমেই এমপি মহোদয়কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করি।কারন ওনার সুদৃষ্টির জন্যই
আমার ইউনিয়নের অনেক হতদরিদ্র ও অসহায় সুবিধা বঞ্চিত মানুষকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী পৌঁছে দিতে পেরেছি।তিনি আরো ভালো কাজ করতে গেলে সবাইকে জনপ্রতিনিধি হতে হবে এমনটা
ভুল।আমরা নিজের জায়গা থেকেও মানুষ বা দেশের জন্য কাজ করতে পারি।শুধু আপনার আমার সদ ইচ্ছা ও কাজ করাটায় আসল।আমি যেকোনো পরিস্থিতিতে মানুষের জন্য কাজ করতে চাই ইনশাআল্লাহ। স্থানীয় সূত্র জানায়, আলাউদ্দিন (রনি) সব সময় আমাদের ইউনিয়নবাসীর পাশে থেকে শক্তি ও সাহস যুগিয়েছ।বারবার ভালোবাসার হাত প্রসারিত করেছে। এমন সোনার ছেলে প্রতিটি গ্রামে থাকা দরকার।