এক মামলা থেকে রেহাই পেলেন সালমান

0
13

অনলাইন ডেস্ক : নানা সময়ে নানা কারণে বলিউড তারকাদের আইনের মুখোমুখি হতে হয়েছে। এই তালিকায় সালমান খানের নাম অন্যতম প্রধান। হাফ ডজনেরও বেশি মামলা ঘাড়ে নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন ভাইজান। যেগুলোর জন্য মাঝে মাঝেই তাকে হাজির হতে হয় আদালত প্রঙ্গণে। জেলেও যেতে হয়েছে একাধিকবার।
শুধুমাত্র ১৯৯৮ সালেই সালমানের নামে তিনটি মামলা দায়ের হয়েছিল। সে বছর কৃষ্ণসার হরিণ হত্যায় নাম জড়িয়েছিল সল্লু মিয়া। ঘটনাটি ঘটেছিল যোধপুরের কোঙ্কনি গ্রামে। সেখানে সালমানের ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা ছবি ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’-এর শুটিং চলছিল। ওই সময় এক হরিণ হত্যাকে কেন্দ্র করে তিনটি মামলা দায়ের হয়েছিল ভাইজানের নামে।
সেই তিন মামলার একটি ছিল লাইসেন্সবিহীন বন্দুক সঙ্গে রাখা। সোমবার যোধপুরের একটি দায়রা আদালত সালমান খানকে সেই মামলা থেকে রেহাই দিয়েছে। সালমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তিনি বন্দুকের লাইসেন্সের ভুয়া এফিডেফিট জমা করেছিলেন। সেখানে বলা হয়েছিল, লাইসেন্সের রিন্যুয়ালের সময় ওই কাগজ হারিয়ে ফেলেছিলেন সালমান।
সোমবার আদালতের পর্যবেক্ষণেও তাই বলা হয়। বলা হয়, লাইসেন্স রিন্যুয়ালের সময় সে সংক্রান্ত কাগজপত্র হারিয়ে যায়। সালমান উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে ভুয়া নথি জমা করেননি। যার কারণে এই মামলা থেকে বলিউডের সুলতানকে রেহাই দিয়েছে যোধপুরের একটি দায়রা আদালত।
সালমান বর্তমানে চুটিয়ে উপভোগ করছেন তার ‘ভারত’ ছবির সাফল্য। গত ৫ জুন ঈদ উপলক্ষ্যে মুক্তি পাওয়ার পর ইতোমধ্যে ছবিটির আয় ২০০ কোটি ছাড়িয়ে গেছে। এখনও চলছে দেদারসে। আলি আব্বাস জাফর পরিচালিত এই ছবিতে সালমানের নায়িকা তার সাবেক প্রেমিকা ক্যাটরিনা কাইফ। আরও আছে করণ সিং গ্রোভার।