আজ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস

0
42

অনলাইন ডেস্ক : আজ ১৭ মে (শুক্রবার)। বঙ্গবন্ধুকন্যা, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৯তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। ১৯৭৫ সালে সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দীর্ঘ প্রবাস জীবন কাটিয়ে ১৯৮১ সালের এই দিনে দেশে ফেরেন শেখ হাসিনা।
সেই দিন সারা দেশ থেকে আসা লাখো মানুষ তাকে স্বাগত জানান, জনগনের ভালোবাসায় সিক্ত হন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা।
দলীয় প্রধানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের দিনে নানা কর্মসূচি দিয়েছে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী ও ভাতৃপ্রতীম সংগঠনগুলো।
শেখ হাসিনার সুন্দর জীবন ও দীর্ঘায়ু কামনা করে দেশব্যাপী (ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, পৌর, থানা, উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে) দোয়া, মিলাদ মাহফিলসহ ধর্মীয় উপাসনালয়গুলোতে বিশেষ প্রার্থনা, বিজয় র‌্যালি ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হবে বলে আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে।
দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এক বিবৃতিতে আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোসহ সকল স্তরের নেতা-কর্মী, সমর্থক-শুভানুধ্যায়ী ও দেশের সর্বস্তরের জনগণকে দিসবটি যথাযোগ্য মর্য়াদায় পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন।
১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। সে সময় বিদেশে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।
বিদেশে অবস্থানকালে ১৯৮১ সালের ১৪, ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে শেখ হাসিনা দলের সভাপতি নির্বাচিত হন। এরপর দীর্ঘ প্রবাস জীবন শেষে একই বছরের এই দিনে তৎকালীন সামরিক সরকারের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে দেশে ফেরেন তিনি। শেখ হাসিনার সেই স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে তার নিরবচ্ছিন্ন দীর্ঘ সংগ্রাম শুরু হয়। দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে সামরিক শাসক ও স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে তিনি সংগ্রাম করে গিয়েছেন। জেল-জুলম, অত্যাচার কোনোকিছুকেই ভয় পান নি। স্বৈরাচারের রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করেছেন বারবার। দিনটি ছিল রোববার। বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে তাকে একনজর দেখার জন্য কুর্মিটোলা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে শেরেবাংলা নগর পর্যন্ত লাখো মানুষের ঢল নামে।