অভিনয় আমার কাছে সন্তানের মতো: শাহনাজ খুশি

0
51

এম এস শবনম শাহীন: প্রখ্যাত নাট্যরচয়িতা বৃন্দাবন দাসের সঙ্গে বৈবাহিকসূত্রে আবদ্ধ হওয়ার সুবাদে ঢাকা আরণ্যক নাট্যদলের সঙ্গে পরিচয় ও পরবর্তীতে আরণ্যকের সদস্যপদ লাভ করেন তিনি।
বিশিষ্ট নাট্যকার মামুনুর রশীদের লেখা ও নির্দেশনায় জাহাঙ্গীরনগর থিয়েটারের প্রযোজনায় পাবলিক নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে খুশির মঞ্চ অভিনয় শুরু।
আরণ্যক নাট্যদল প্রযোজিত মামুনুর রশীদের রচনা ও পরিচালনায় “জয়জয়ন্তী” নাটকে অভিনয় করে প্রশংসীত হন।
বলছিলাম শাহনাজ খুশির কথা, যে কিনা গত দুই দশক ধরে টেলিভিশন এবং থিয়েটারে কাজ করছেন।
সাকিন সারিসুরির স্বামী দ্বারা নির্যাতিত সরল সোজা স্ত্রী, হাড়কিপটায় সেই লেভেলের কিপটা মেয়ে , আলতা সুন্দরীর শিক্ষিত বউ ,ঝগড়ীওয়ালীর সেই ঝগড়ী কিংবা সার্ভিস হোল্ডারের কৃষকের বউ সবগুলো চরিত্রকে নিজের অভিনয়গুণে স্বরণীয় করে রেখেছেন শাহনাজ খুশি।
গ্রামের মেয়ে চরিত্রে তার মতো এতো ন্যাচারাল এক্টিং করা অভিনয় শিল্পী বাংলাদেশে আর আছে কি না আমার জানা নাই।
বৃন্দাবন দাসের রচনা ও সালাউদ্দিন লাভলুর পরিচালনায় ধারাবাহিক নাটক “ঘর কুটুম” নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে খুশির টেলিভিশন নাটকে অভিনয় শুরু।
এই নাটকে গহর চরিত্রে অভিনয় করে খুশি খুব দ্রুত দর্শকের মনে স্থান করে নেন।
একে একে কাজ করেছেন ‘ওয়ারেন’, ‘হাড় কিপটে’, ‘পত্র মিতালী’, ‘সার্ভিস হোল্ডার’, ‘ঘর কুটুম’, ‘পাত্রী চাই’, ‘তিন গেদা’, ‘আলতা সুন্দরী’, ‘সাকিন সারিসুরি’, ‘মেহের শেখ’, ‘কতা দিল্যেম তো’, ‘ফিরে পাওয়া ঠিকানা’, ‘ডায়রী’, ‘কাসু দালাল’, ‘ঢোলের বাদ্যি’, ‘রূপসী টেইলার্স’, ‘ঝগড়ালী’ সহ জনপ্রিয় বহু একক ও ধারাবাহিক নাটকে ।
সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নিজেকে জাত অভিনেত্রী হিসেবে পরিণত করছেন শাহনাজ খুশি। বিশেষ করে ভিন্ন ধারার চরিত্রে সাবলীল অভিনয় করে ক্রমেই দর্শকের মনে স্থায়ী আসন করে নিয়েছে প্রিয় এই অভিনেত্রী।
একবার এক সাংবাদিক তাকে প্রশ্ন করেছিলো তার ড্রিম চরিত্র কি ??
জবাবে সে বলেছিলো, সে ফ্রিডম ফাইটার তারমন বিবি, কাঁকন বিবি, ভাস্কর ফেরদৌসী প্রিয়দর্শনী, রমা চৌধুরীর জীবনী চরিত্রে কাজ করতে চায়।
বড় পর্দাতে তাকে আজ পর্যন্ত দেখা যায়নি। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন,
প্রচলিত বাণিজ্যিক ধারার ছবিতে তিনি কখনো অভিনয় করতে চান না । তবে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কোন ছবিতে কাজের সুযোগ আসলে তিনি সেটা করবেন।
আমার মনে হয় ,বৃন্দাবন দাস আর সালাহ্উদ্দীন লাভলু তাকে যে ভাবে ব্যবহার করেছে এখনকার পরিচালকরা সেভাবে তাকে ব্যবহার করতে পারছেনা।
প্রিয় এই অভিনেত্রীর ভবিষ্যতের সব কাজের জন্য শুভকামনা থাকলো।